Quora কি?Quora ব্যাবহারে সুবিধা কি কি?-টেকনো এক্সট্রা

হ্যালো বন্ধুরা আসস্লামুয়ালাইকুম টেকনো এক্সট্রার পক্ষ থেকে আরও একটি নতুন এপিসোডে আপনাদের সকলকে স্বাগতম।এই এপিসোডে আপনি জানতে পারবেন-Quora কি?Quora ব্যাবহারে সুবিধা কি কি? কুয়ারার ইতিহাস,কিভাবে জয়েন করবেন এবং কুয়ারা পরিসংখ্যান কি?

কুয়ারা হচ্ছে একটি প্রশ্ন উত্তর ভিত্তিক ওয়েবসাইট।যেখানে একজন ব্যবহারকারী প্রশ্ন করে থাকেন আরেকজন ব্যবহারকারী সেই প্রশ্নের উত্তর দিয়ে থাকেন।সারা পৃথিবীর লোক এই কুয়ারা তে প্রশ্ন করে থাকে।কুয়ারা সেই প্রশ্নের উত্তর সাথে সাথে দেয়-এই একটি কারণে কুরাকে গুগল rank করে রেখেছে।এলেক্সা কর্তৃক কুরার rank হলো ৩৪৫।

আরও জানুনঃ

গুগল মিট বনাম জুম কোন অ্যাপটি সেরা?

জানুন গুগলের সেরা ৭ টি প্রোডাক্ট কি কি?


গত 5 বছরে দেখা গেছে কুয়ারা গুগল ট্রেন্ডিং আপওয়ার্ড করেছে।এবং এর জনপ্রিয়তা দিন দিন অনেক বেরে গিয়েছে।যেকোনো দেশের যেকোনো ভাষায় এই কুয়ারা ব্যবহার করা যায়।এটা আমেরিকা,কানাডা,লন্ডন সহ সব দেশের ল্যাঙ্গুয়েজে ব্যবহার করা যায়।

কুয়ারার ইতিহাসঃ

কুয়ারা ২০০৯ সালে একজন ফেসবুক কর্মী অ্যাডাম ডি আঞ্জেলা এবং চার্লি চেভারের সহয়তায় তৈরি হয়েছিল।২০১৭ সালের আগে যার ভিজিটরের পরিমান ছিল ১০০ মিলিয়ন সেটা বেড়ে গিয়ে ২০১৭ সালে দাঁড়িয়েছে ১৯০ মিলিয়ন।এটিতে ২০১০ সালে বিপুল পরিমান ট্রাফিক আসে যার জন্য তাদের কুয়ারা পরিচালনা করতে অসুবিধা হয়ে যায়।

কুয়ারাতে একজন ইউজার প্রশ্ন করলে তার পছন্দের একাধিক উত্তর পান যেটা তাকে বিপুল জ্ঞান আহরন করতে সাহায্য করে থাকে।ইউজার যদি চায় তার প্রশ্ন সম্পর্কিত কোন মঞ্চে যোগদান করবে তাহলে সেটাও সে পারবে।মঞ্ছকে আমরা ফেসবুক পেজের সাথে তুলনা করতে পরি।এখানে ইউজারের জিজ্ঞাসা সম্পর্কিত অনেক গুলো প্রশ্ন এবং তার যথাযথ উত্তর দেওয়া থাকে।

আরও জানুনঃ

উপায় অ্যাপ এমবি ছারাই চলবে গ্রামীনফোনে।

কম্পিউটার হ্যাং হওয়ার কারন কি?হ্যাং হলে করনিও কী কী?

কিভাবে কুয়ারা তে জয়েন করবেনঃ

কুয়ারাতে জয়েন করার জন্য আপনাকে গুগল সার্চ বক্সে কুয়ারা লিখে সার্চ দিতে হবে।এরপর কুয়ারা ডট কমে প্রবেশ করে সাইন ইন করে নিতে হবে।সাইন-ইন করার জন্য আপনি ফেসবুক অথবা গুগল থেকে সাইন ইন করতে পারেন অথবা ইমেইল দিয়েও সাইন ইন করতে পারেন।সাইন ইন হয়ে গেলে আপনাকে সাইন আপ বা লগ-ইন করতে হবে।লগ-ইনে আসলে continue উইথ গুগল অথবা ফেসবুকে ক্লিক করলে অটোমেটিক লগ-ইন হয়ে যাবে।

Quara কি

এরপর আপনি আপনার প্রোফাইলে চলে আসবেন।প্রোফাইলে আসার পর আপনি যে বিষয়ে লিখতে চান সেটা (ইংরেজি অথবা বাংলা) সেটা নির্বাচন করে নিবেন।এরপর আপনার প্রফাইল পরিপূর্ণ করতে হবে।আপনি কি করেন,আপনার পেশা,আপনার পছন্দের বিষয় এবং আপনার ছবি যুক্ত করে নিবেন।

ব্যাস আপনার প্রফাইল পরিপূর্ণ হয়ে যাবে।আপনি যদি প্রশ্ন জুড়ে দিতে চান তাহলে অ্যাড কোশ্চেনে প্রশ্ন করতে পারবেন।কুয়ারা আপনাকে নোটিফিকেশন আকারে প্রশ্ন পাঠাবে আপনি চাইলে সেগুলোর উত্তর দিতে পারেন।

আরও জানুনঃ

অনলাইনে লোগো তৈরি এখন খুব সহজ

ফেসবুক পেজ থেকে আয় করার উপায়।

Quara ব্যাবহারে কি কি সুবিধা

কুয়ারাতে মঞ্চ কিভাবে বানাবেনঃ

Create Space এ ক্লিক করে নতুন মঞ্চ তৈরি করে নিবেন।এরপর মঞ্চের একটি নাম দিবেন এবং তার একটি সুন্দর ডিসক্রিপশন দিয়ে দিবেন।এরপর আপনার পছন্দের বিষয় নিয়ে লেখালিখি করবেন।মঞ্চে নতুন লেখক ও যুক্ত করা যায়।তারা মঞ্চকে নিয়মিত আপডেট রাখবে। সেখনে নতুন নতুন বিষয় লেখালেখি করবে।ইউজাররা সেই মঞ্ছকে অনুসরণ করে রাখবে যাতে করে তারা নিয়মিত আপডেট পেয়ে থাকে।

কুয়ারা পরিসংখ্যান কিঃ

কুয়ারাতে আপনি যে বিষয়ে উত্তর দিবেন সেটা কে দেখল,কে আপভোট দিল এবং কে এটাতে কমেন্ট করল তার একটা হিসেবকে বলা হয় পরিসংখ্যান।কোন টপিক্সে কত ভিউ সেটা খুব সহজে পরিসংখ্যান থেকে বুঝা যাবে।পরিসংখ্যান দেখে একজন লেখক তার লেখার প্রতি অনেক আগ্রহ পায়।

কুয়ারা কেন ব্যাবহার করব

আরও জানুনঃ

ব্লগিং করে মাসে ৩০ হাজার টাকা আয় করার কৌশল।

এস ই ও শিখি এবং ওয়েবসাইটে ট্রাফিক নিয়ে আসি

পরিশেষঃ

Quara কি?Quara ব্যাবহারে সুবিধা কি কি?এতক্ষণ আপনারা এটা জানলেন।এছারাও কুয়ারা ভিবিন্ন ধরণের প্রোগ্রামে আয়োজন করে থাকে এর মধ্যে অন্যতম একটি প্রোগ্রাম হল লেখক প্রোগ্রাম।এই প্রোগ্রামে কুয়ারা সেরা লেখক নির্বাচিত করে তাকে পুরুস্কার দিয়ে থাকে।কুয়ারাতে কিছু নির্দেশনা আছে যেগুলো একজন ইউজারকে মেনে চলতে হয়।যেমন তার নিজের সঠিক ইনফরমেশন দিয়ে প্রফাইলটি ঠিক করে নিতে হবে।যদি কেউ ফেক ইনফরমেশন অথবা কোন প্রশ্নের ভুলভাল উত্তর দিয়ে থাকে তাহলে কুয়ারা এটাকে স্পাম হিসেবে ধরে নিয়ে ব্যান করে দিতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button